ঢাকা ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪

সমাজকর্মের শাখা অধ্যায়ের সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর, পর্ব-৬- এইচএসসি সমাজকর্ম ২য় পত্র

প্রকাশ: ০৮ জুন ২০২৪, ০৬:৫৭ পিএম
আপডেট: ০৮ জুন ২০২৪, ০৬:৫৭ পিএম
সমাজকর্মের শাখা অধ্যায়ের সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর, পর্ব-৬- এইচএসসি সমাজকর্ম ২য় পত্র

সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর-৫

উদ্দীপকটি পড়ে নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।
কাপ্তাই থেকে চট্টগ্রামে আসার পথে রাইসুল করিম সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হন। আহত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন রাইসুল করিমকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নিয়ে আসেন। সেখানে কর্তব্যরত সমাজকর্মী মেডিকেল আউটডোর থেকে শুরু করে ভর্তি হওয়া পর্যন্ত সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সহায়তা করেন। তাছাড়া ডাক্তার, আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ, প্রয়োজনীয় ওষুধ সংগ্রহসহ নানাবিধ কাজে সাহায্য ও সহযোগিতা করেন ।
ক. বাংলাদেশে কত সালে বিদ্যালয় সমাজকর্ম চালু হয়?
খ. শিল্প সমাজকর্ম বলতে কী বোঝায়?
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত সমাজকর্মীর কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সমাজকর্মের কোন শাখার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. রোগীর সার্বিক কল্যাণে উক্ত শাখার গুরুত্ব আলোচনা করো। 

উত্তর: ক. ১৯৬৯ সালে বাংলাদেশে বিদ্যালয় সমাজকর্ম চালু হয়।

খ. শিল্প খাতে সমাজকর্মের জ্ঞান, তত্ত্ব, কৌশল ও পদ্ধতির প্রয়োগকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে শিল্প সমাজকর্ম। শিল্প সমাজকর্ম হলো সমাজকর্মের সেই শাখা যে শাখায় সমাজকর্মীরা তাদের পেশাগত দক্ষতা ব্যবহার করে শ্রমিক-মালিক সম্পর্ক উন্নয়ন ঘটিয়ে অধিক উৎপাদন নিশ্চিত করে এবং শ্রমিকদের জীবন মানোন্নয়নে সহায়তা করে।

গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত সমাজকর্মীর সঙ্গে চিকিৎসা সমাজকর্ম শাখার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। 
একজন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর বিভিন্ন সামাজিক, অর্থনৈতিক, পারিবারিক ও মানসিক প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হন। এগুলো চিহ্নিত করে রোগীর শারীরিক, মানসিক তথা সর্বজনীন কল্যাণ সাধনে সচেষ্ট সমাজকর্মের শাখাই চিকিৎসা সমাজকর্ম বা হাসপাতাল সমাজকর্ম। তাই স্কিডমোর ও থ্যাকারে বলেন, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ক্ষেত্রে সমাজকর্মের জ্ঞান ও দক্ষতা, দৃষ্টিভঙ্গি, মূল্যবোধ এবং পদ্ধতি প্রয়োগ করাকে চিকিৎসা সমাজকর্ম বলা হয়। উদ্দীপকে দুর্ঘটনার শিকার রাইসুল করিমকে মেডিকেল চিকিৎসায় সমাজকর্মী কর্তৃক প্রদত্ত সব সেবাই চিকিৎসা সমাজকর্মের অন্তর্ভুক্ত। 
অতএব বলা যায়, রাইসুলের চিকিৎসাসেবায় সহায়তাকারী সমাজকর্মীর সঙ্গে চিকিৎসা বা হাসপাতাল সমাজকর্মের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

ঘ. রোগীর সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিতকরণে চিকিৎসা সমাজকর্ম শাখার ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে।
সমাজকর্মীরা রোগীকে পরিবেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য বিধান, মানসিক সমর্থন দান, বস্তুগত ও অবস্তুগত সেবার মাধ্যমে সক্ষম করে তোলেন। বস্তুগত সেবার মধ্যে রয়েছে ওষুধপথ্য, রোগের ধরন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় উপকরণ দেওয়া এবং অবস্তুগত সেবার মধ্যে রয়েছে সামাজিক ও মানসিক সমর্থন, সামাজিক যোগাযোগ, রোগীর গৃহ পরিদর্শন, পরামর্শ সহায়তা, কাউন্সেলিং সেবা, বিভিন্ন ধরনের সেবা প্রভৃতি। আর এসব কারণে চিকিৎসা সমাজকর্মের গুরুত্ব দিন দিন বেড়েই চলেছে। এ ছাড়া রোগীর ফলপ্রসূ নিরাময়ের জন্য প্রয়োজন অনুধ্যান, রোগ নির্ণয় ও সমাধান হাসপাতাল সমাজসেবা এক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। হাসপাতালে ভর্তির পর নতুন পরিবেশে রোগী ঠিকমতো খাপ খাওয়াতে পারে না। তাই চিকিৎসক, নার্স, অন্য ব্যক্তিদের সঙ্গে রোগীর সামঞ্জস্য বিধানে হাসপাতাল সমাজকর্মী সহায়তা করেন। রোগীদের মানসিক তৃপ্তি, একাকিত্ব দূরীকরণ ও বিনোদনের ব্যবস্থাকরণে হাসপাতাল সমাজসেবা অতি প্রয়োজনীয় চিকিৎসায় সফলতা অর্জনে রোগীর মনস্তাত্ত্বিক অবস্থার উন্নয়ন একান্ত প্রয়োজন; যা সমাজসেবা বিভাগ সম্পাদন করতে পারে। আবার রোগীর রোগ-পরবর্তী সেবা যেমন- গৃহ পরিদর্শন, অনুসরণ, মূল্যায়ন প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও নির্দেশনা দেওয়া ইত্যাদি প্রয়োজন হয়। এসব ক্ষেত্রে হাসপাতাল সমাজসেবা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। তাই বলা যায়, রোগীর সার্বিক কল্যাণে চিকিৎসা সমাজকর্মের ভূমিকা অনস্বীকার্য।

কামরুন নাহার রুনু, প্রভাষক, সমাজকর্ম, শের-ই-বাংলা স্কুল অ্যান্ড কলেজ
মধুবাগ, মগবাজার, ঢাকা/আবরার জাহিন

প্রাণহানির ঘটনায় বিচার চায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৭:২৪ পিএম
আপডেট: ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৭:২৪ পিএম
প্রাণহানির ঘটনায় বিচার চায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি
বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি

কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে প্রাণহানির ঘটনায় দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি। 

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. কাজী আনিস আহমেদ স্বাক্ষরিত বিবৃবিতে এ দাবি জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, ‘সরকারি চাকরির কোটা পদ্ধতি বিষয়ে দেশব্যাপী সৃষ্ট সংঘাতময় পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। বিশেষত কোটাবিরোধী সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন স্থানে মর্মান্তিক প্রাণহানির ঘটনায় আমরা গভীরভাবে শোকাহত। সম্ভাবনাময় তরুণ প্রাণের অকালে ঝরে যাওয়া, দেশ ও জাতির জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। এমন ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানাই। সেই সঙ্গে সহিংসতার ফাঁদে পা না দিয়ে, কোটা সংস্কার প্রসঙ্গে মাননীয় আদালতের সুচিন্তিত রায়ের জন্য শিক্ষার্থীদের ধৈর্যশীল ভূমিকা পালনের আহ্বান জানাই।’

আন্দোলনে স্বার্থান্বেষী মহলের প্ররোচনা থেকে সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়ে বিবৃবিতে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি আশা করে, সংঘাত-সহিংসতা মুক্ত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম রক্ষার্থে শিক্ষার্থীরা, শিক্ষার পরিবেশ ব্যাহত কিংবা ক্যাম্পাস বন্ধ রাখতে হয়, এমন সব কার্যক্রম থেকে নিজেদের বিরত রাখবে। সেসঙ্গে প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে নিজেদের যোগ্য করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করবে। চলমান অবস্থা দীর্ঘায়িত তথা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম বন্ধ থাকলে শিক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে এবং জাতি হিসেবে আমরা পিছিয়ে পড়ব। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ সমুন্নত রাখার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সবার সার্বিক সহযোগিতা একান্তভাবে কাম্য।’

এইচএসসির আরও ৩ পরীক্ষা স্থগিত

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৫:১০ পিএম
আপডেট: ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৫:২৩ পিএম
এইচএসসির আরও ৩ পরীক্ষা স্থগিত
ফাইল ছবি

আরও তিন বিষয়ের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি প্রফেসর তপন কুমার সরকার স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, অনিবার্য কারণে আগামী ২১, ২৩ ও ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য সব শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষাগুলো স্থগিত করা হলো। স্থগিত হওয়া পরীক্ষার সময়সূচি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পরবর্তী সময়ে জানিয়ে দেওয়া হবে। আগামী ২৮ জুলাই থেকে পূর্বঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ী পরীক্ষা যথারীতি চলবে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ জুলাই এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বৃহস্পতিবারের (১৮ জুলাই) পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। 

কবির/সালমান/

বাউবির ১৯, ২০ ও ২১ জুলাইয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২৪, ১০:২৮ এএম
আপডেট: ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১:৪৩ এএম
বাউবির ১৯, ২০ ও ২১ জুলাইয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) আগামী ১৯, ২০ ও ২১ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

বুধবার (১৭ জুলাই) বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক ড. আ ফ ম মেজবাহউদ্দিন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
 
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। 

এ ছাড়াও একই তারিখের Master’s in Development Studies (MDS); Master of Disaster Management (MDM); Certificate in  English Language Proficiency (CELP); MS in Irrigation and Water Management; MS in Entomology; MS in Agronomy; MS in Aquaculture; MS in Poultry Science; Certificate in Pisciculture and Fish Processing (CPFP); Certificate in Livestock and Poultry (CLP); Master of Disability Management and Rehabilitation (MDMR) পরীক্ষা, ২০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য Master of Disaster Management (MDM); Master of Disability Management and Rehabilitation (MDMR) পরীক্ষা এবং ২১ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য বিএ ও বিএসএস পরীক্ষা-২০২৩ স্থগিত করা হয়েছে।
 
স্থগিত পরীক্ষার তারিখ পরে জানানো হবে বলে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক স্বাক্ষরিত পত্রের মাধ্যমে বলা হয়েছে।

ইসরাত চৈতী/অমিয়/

কোরআন মজিদ শিক্ষা অধ্যায়ের ৩টি বর্ণনামূলক প্রশ্নোত্তর, পঞ্চম শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা

প্রকাশ: ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৫:১৪ পিএম
আপডেট: ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৫:১৪ পিএম
কোরআন মজিদ শিক্ষা অধ্যায়ের ৩টি বর্ণনামূলক প্রশ্নোত্তর, পঞ্চম শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা

বর্ণনামূলক প্রশ্ন ও উত্তর 

প্রশ্ন-১। কোরআন মজিদ কার বাণী? কোরআন মজিদ তিলাওয়াতের উদ্দেশ্য কয়টি ও কী কী?
উত্তর: কোরআন মজিদ আল্লাহতায়ালার বাণী। কোরআন মজিদ তিলাওয়াতের উদ্দেশ্য হলো চারটি। যথা-
১. সহিহ শুদ্ধভাবে তিলাওয়াত করা
২. এর অর্থ বোঝা।
৩. আল্লাহপাক যা আদেশ করেছেন তা পালন করা।
৪. আল্লাহপাক যা নিষেধ করেছেন তা থেকে বিরত থাকা।

প্রশ্ন-২। কোরআন মজিদ বুঝে তিলাওয়াত করলে কী কী বিষয়ে জানতে পারবে তার একটি তালিকা তৈরি করো।
উত্তর: কোরআন মজিদ বুঝে তিলাওয়াত করলে যেসব বিষয় আমরা জানতে পারব তার একটি তালিকা নিচে দেওয়া হলো-
ক. আল্লাহপাকের বিধিবিধান:
১. আল্লাহপাকের পরিচয় ও নবী-রাসুলদের পরিচয় সম্পর্কে জানতে পারব।
২. ফেরেশতাদের পরিচয় ও পরকালের পরিচয় সম্পর্কে জানতে পারব।
৩. কে আমাদের সৃষ্টিকর্তা, রিজিকদাতা ও পালনকর্তা তা জানতে পারব।
৪. কে একমাত্র সর্বশক্তিমান, সবকিছুর মালিক, পরম দয়ালু ও একমাত্র শান্তিদাতা তা জানতে পারব।
খ. মানবজীবনের পদ্ধতি:
১. আমাদের কাজকর্ম ও চরিত্র কেমন হওয়া উচিত সে সম্পর্কে জানতে পারব।
২. দুনিয়ায় আমাদের কীভাবে জীবনযাপন ও লেনদেন করতে হবে তা জানতে পারব।
৩. দুনিয়ায় আমরা কার হুকুম মানব, আর কার হুকুম মানব না সে সম্পর্কে জানতে পারব।
৪. কীসে আমাদের সম্মান, সফলতা, ব্যর্থতা এবং লাঞ্ছনা তা জানতে পারব।

প্রশ্ন-৩। তাজবিদ কাকে বলে? সঠিক উচ্চারণে কোরআন মজিদ তিলাওয়াত করলে কী পাওয়া যায় তা উল্লেখ করো।
উত্তর: শুদ্ধভাবে কোরআন মজিদ তিলাওয়াতের নিয়মকে তাজবিদ বলে।
সঠিক উচ্চারণে কোরআন মজিদ তিলাওয়াতের উপকার: সঠিক উচ্চারণে কোরআন মজিদ তিলাওয়াত করলে আল্লাহপাকের কালামের অর্থ ঠিক থাকে। সালাত সঠিক ও শুদ্ধ হয়। সুতরাং সঠিক উচ্চারণে কোরআন তিলাওয়াত করা আমাদের শিখতে হবে।

 

কোরআন মজিদ শিক্ষা অধ্যায়ের ৪টি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর, পঞ্চম শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা

প্রকাশ: ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৫:১২ পিএম
আপডেট: ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৫:১২ পিএম
কোরআন মজিদ শিক্ষা অধ্যায়ের ৪টি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর, পঞ্চম শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা

সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন ১। কোরআন পাঠের উদ্দেশ্য কয়টি?
উত্তর: কোরআন পাঠের উদ্দেশ্য চারটি।
প্রশ্ন ২। মাখরাজ কয়টি?
উত্তর: মাখরাজ ১৭টি।

প্রশ্ন ৩। কণ্ঠনালির হরফ কয়টি?
উত্তর: কণ্ঠনালির হরফ ছয়টি।
প্রশ্ন ৪। দুই ঠোঁট থেকে কোন কোন হরফ উচ্চারিত হয়?
উত্তর: দুই ঠোঁট থেকে যে হরফগুলো উচ্চারিত হয় তা হলো- ওয়াও, বা এবং মিম।

মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, মাস্টার ট্রেইনার ও সিনিয়র শিক্ষক
শের-ই-বাংলা স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মধুবাগ, রমনা, ঢাকা/আবরার জাহিন